কিস্তির টাকা পরিশোধ না করায় তরুণীর বিয়ে ভাঙলো এনজিও কর্মীরা

ঋ’ণের কিস্তি আদায় করতে গিয়ে এক তরুণীর বিয়ে ভে’ঙে দেয়ার অ’ভিযোগ উঠেছে এক এনজিও সংস্থার কর্মক’র্তাদের বি’রুদ্ধে। সোমবার বাগেরহাটের ফকিরহাটের সদর ইউপির উত্তরপাড়া গ্রামে এ ঘ’টনা ঘটে।এ ঘ’টনায় ওই তরুণীর মা ইয়াসমিন বেগম ফকিরহাট মডেল থা’না ও ইউএনও বরাবর এ বি’ষয়ে প্রতিকার চেয়ে লিখিত অ’ভিযোগ করেছেন।

অ’ভিযোগে ইয়াসমিন বেগম জানান, তিনি একজন শা’রীরিক প্রতিব’ন্ধী ও অ’সহায় না’রী। তার স্বা’মী সরোয়ার শেখ একজন দিনমজুর। অভাবে পড়ে তিনি ‘নবোলক পরিষদ’ নামের স্থানীয় একটি এনজিও থেকে কিছু টাকা ঋ’ণ নেন,

যা নিয়মিত পরিশোধও করছিলেন। মহামা’রিকালে সমস্যা হওয়ায় কয়েকটা কিস্তি তিনি দিতে পারেননি। সম্প্রতি তিনি কাজের উদ্দেশ্যে ঢাকায় যান এবং প্রায় এক সপ্তাহ আগে মে’য়ের বিয়ের জন্য বাড়িতে আসেন।

তিনি আরো জানান, গ্রামবাসীর সহায়তায় ২৮ ডিসেম্বর মে’য়ের বিয়ের আয়োজন করেন। খবর পেয়ে বিয়ের দিনই এনজিওর লোকজন বাড়িতে এসে ঋ’ণের টাকার জন্য চা’প সৃষ্টি করাসহ গালিগালাজ করে।

এ সময় তিনি মে’য়ের বিয়ের পর ঋ’ণের টাকা ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন এবং তাদের চলে যেতে বলেন। এছাড়া এনজিওর লোকজন ছে’লে পক্ষকে বিয়ে না দিয়ে চলে যেতে বলে। পরে স্থানীয় লোকজন ছে’লে পক্ষকে অনেক অনুরোধের পরও তারা চলে

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *